ভাসানচর থেকে ফিরেই অভিমত জানাবে রোহিঙ্গা প্রতিনিধিদল

৩৬

স্টাফ রিপোর্টার, রোহিঙ্গা টিভি: 

বাংলাদেশের নোয়াখালি জেলার পানি বেষ্টিত ভাসানচরদ্বীপ বসবাসের উপযুক্ত কিনা তা জানতে এবং সেখানে নির্মিত আশ্রয়কেন্দ্রের সুযোগ-সুবিধা স্বচক্ষে দেখতে যান একদল রোহিঙ্গা প্রতিনিধি। ক্যাম্প থেকে বাছাই করে এ প্রতিনিধিদলে সদস্য নেয়া হয়। আজ (৬ সেপ্টেম্বর) পরিদর্শন শেষে রোহিঙ্গা প্রতিনিধি দল জানান, ভাসানচর থেকে ফিরেই অভিমত জানাবে তারা।

ভাসানচরে যে স্থাপনা গড়ে তোলা হয়েছে, সেটি দেখে ভালো লেগেছে বলে প্রতিনিধিদলের অনেকে গণমাধ্যমকে জানিয়েছে।

মোস্তফা নামের এক রোহিঙ্গা প্রতিনিধির উদ্ধৃতি দিয়ে বাংলাদেশের দৈনিক সমকাল লিখেছে সকাল ১০ থেকে দুপুর পর্যন্ত গাড়িতে করে ভাসানচর ঘুরে দেখানো হয় প্রতিনিধিদের।   ৪০ জন রোহিঙ্গা প্রতিনিধি সাগরের বুকে জেগে উঠা এই চরে গড়ে তোলা স্থাপনাগুলো দেখেন। তবে তাদের অভিমত জানাযাবে পুরো প্রকল্প ঘুরে ফিরে দেখার পর।

বর্তমানে ভাসানচরে তিনশতাধিক রোহিঙ্গা রয়েছে, যাদেরকে মালয়েশিয়াগামী নৌকা থেকে উদ্ধার করেছে প্রশাসন। গত মে ও জুন মাসে তাদেরকে প্রথমবারের মত ভাসানচরের বাসিন্দা করা হয়।

প্রসঙ্গত, রোহিঙ্গা স্থানান্তরের জন্য নিজস্ব তহবিল থেকে  ভাসানচরে আশ্রয় প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে সরকার। জোয়ার ও জলোচ্ছ্বাস থেকে সেখানকার ৪০ বর্গকিলোমিটার এলাকা রক্ষা করতে ১৩ কিলোমিটার দীর্ঘ বাঁধ এবং এক লাখ রোহিঙ্গা বসবাসের উপযোগী ১২০টি গুচ্ছগ্রামের অবকাঠামো তৈরি করা হয়েছে।

Comments are closed.